কালীগঞ্জে আনন্দ মেলার নামে চলছে রমরমা জুয়া

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে কালীগঞ্জে আনন্দ মেলার নামে চলছে রমরমা জুয়া, চরকা বাণিজ্য জুয়ার বোর্ডে সর্বশান্ত হচ্ছে যুবসমাজ মর্মে এলাকাবাসী সাংবাদিকেদেও নিকটে ব্যাপক অভিযোগ তুলেছেন।

তারা জানান, পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে শুরু হয়েছে আনন্দ মেলা। প্রতিদিন রাতে আনন্দ মেলার নামে চলছে রমরমা জুয়া, চরকা বাণিজ্য। সেই সাথে সর্বশান্ত হচ্ছে যুবসমাজ। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, প্রতিদিন সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলছে জুয়া ও চরকা খেলা। কালীগঞ্জ পৌর এলাকার শোয়াইবনগর বন্ধুমহল এ মেলার আয়োজন করেছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতা ও প্রশাসনকে ম্যানেজ করে এ জুয়াবোর্ড চালানো হচ্ছে। বাঘ ,সিংহ, মাছ, চলচিত্রের নায়ক-নায়িকাদের ছবি যুক্ত করে চলছে চরকাবোর্ড।

প্রতিদিন স্কুল-কলেজ শিক্ষার্থীরা ভিড় করছে জুয়ার আসরে। রাত যত গভীর হয় জুয়ার আসরে ভিড় বাড়তে থাকে। কালীগঞ্জ এলাকার যুবসমাজ হাজার হাজার টাকা জুয়ার বোর্ডে হেরে গিয়ে খালি হাতে বাড়ি ফিরছে প্রতি রাতে। ৯ নং ওয়ার্ড এলাকার বাসিন্দা ইমরান হোসেন, সানোয়র মোল্ল্যা, বাদশা মিয়া জানান, আনন্দ মেলা নামে জুয়া চরকা খেলায় আমাদের সন্তানরা সর্বশান্ত হয়ে যাচ্ছে। রাতের বেলা লেখাপড়া না করে মেলার দিকে অগ্রসর হচ্ছে, গভীর রাতে বাড়ি ফিরছে।

আমরা কোন প্রতিকার পাচ্ছি না। এ বিষয়ে জানতে চাইলে কালীগঞ্জ থানা ওসি মিজানুর রহমানের সাফ জবাব দেন, মেলার নামে জুয়া খেলা চলতে দেওয়া হবে না। কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার উত্তম কুমার রায়ের ভাষ্য, আনন্দমেলার কোন অনুমতি দেওয়া হয়নি। কেউ জুয়া ও চরকা বাণিজ্য করলে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।