জিমেইলের নতুন ৫ ফিচার

জিমেইল ব্যবহারকারীরা এখন থেকে পাঠানো ই-মেইলের মেয়াদ উত্তীর্ণের সময় নির্ধারণ করে দিতে পারবেন। এরকমই ৫টি ফিচার এনেছে জিমেইল।

১. কনফিডেন্সিয়াল মোড: নিরাপত্তা এবং গোপনীয়তা আরও কড়া করতে গুগল নিয়ে এসেছে এই নতুন পন্থা। এখন মেইল খুলতে গেলে আপনাকে পাসকোড এন্ট্রি করতে হবে, যা আপনার ফোনে এসএমএস-এর মাধ্যমে যাবে। শুধু তাই নয়, জিমেইল ব্যবহারকারীরা এখন থেকে পাঠানো ই-মেইলের মেয়াদ উত্তীর্ণের সময় নির্ধারণ করে দিতে পারবেন।

২. স্মার্ট রিপ্লাইস: ব্যস্ততার কথা চিন্তা করে ই-মেইলের উত্তর দেওয়ার জন্য গুগল কিছু টেমপ্লেট সংযোজন করেছে। এখন আপনাকে শব্দ খরচ করে কিছু লিখতে হবে না, তৈরি করা টেমপ্লেট ক্লিক করলেই ই-মেইলের উত্তর দিতে পারবেন।

৩. নিউ কাস্টমাইজেশন: এখন থেকে আপনি ইনবক্স কাস্টমাইজ করতে পারবেন। নতুন জিমেইলে ইনবক্সের সঙ্গে ক্যালেন্ডার সংযুক্ত থাকবে, যা আপনাকে নতুন ইভেন্ট বানাতে সাহায্য করবে। ইনবক্স থেকে না বেরিয়েই আপনি ইভেন্ট তৈরি করতে পারবেন।

৪. স্মার্ট কম্পোজ: জিমেইল এর অন্যতম বুদ্ধিদীপ্ত ফিচার এটি। এবার থেকে কোনও মেইল লেখার সময়ে গুগল নিজে থেকে মেইলের বিষয় অনুযায়ী শব্দগুচ্ছ বা ফ্রেজ দিয়ে দেবে। ফলে কম সময়ে আপনি মেইল লিখে লিখতে পারবেন।

৫. হাই প্রায়োরিটি নোটিফিকেশন: আপনার ইনবক্সে মেইলের গুরুত্ব বুঝে গুগল সেগুলো রিড করবে এবং প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী ইনবক্সে রাখবে বা ডিলিট করে দেবে। কোনও ম্যালওয়্যার বা থ্রেটস-এর সম্মুখীন হলে নিজে থেকেই স্ক্যান চালাবে। তা ছাড়া দীর্ঘদিন ধরে কোনও মেইলের প্রতি খেয়াল না করলে, গুগল নিজে থেকে সেগুলো আনসাবস্ক্রাইব করে দেবে।