ঝিনাইদহে ভূয়া পরীক্ষার্থীর ১ বছরের কারাদন্ড

ঝিনাইদহে অনার্স ২য় বর্ষের ইংরেজি পরীক্ষায় প্রক্সি দেওয়ার অপরাধে নাজমুস সাবিক নামে এক ভূয়া পরীক্ষার্থীকে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

বুধবার বিকেলে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুপ্রভাত চাকমা এ দন্ডাদেশ প্রদাণ করেন। দন্ডিত নাজমুস সাকিব সদর উপজেলার হরিশংকরপুর গ্রামের রেজাউল ইসলামের ছেলে। আদালত সুত্রে জানা যায়, বুধবার সারাদেশের ন্যায় ঝিনাইদহ সরকারি কেসি কলেজে অনুষ্ঠিত হয় অনার্স ২য় বর্ষের ইংরেজি পরীক্ষা।

পরীক্ষায় কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের শামীম রেজা নামের এক শিক্ষার্থীর পরিবর্তে নাজমুস সাবিক নামে এক যুবক পরীক্ষা দিচ্ছিল।

পরে তাকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালতের বিচারক তাকে পাবলিক পরীক্ষাসমুহ (অপরাধ আইন) ১৯৮০ এর ৩ ধারা মোতাবেক ১ বছরের কারাদন্ডাদেশ প্রদাণ করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতে ঝিনাইদহ সদর থানার এস আই কবীর ও এস আই প্রবীর সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে উপস্থিত ছিলেন।