প্রেমিকাদের কাছে ক্ষমা চাইলেন নওয়াজ

আত্মজীবনী প্রকাশের আগে বলিউডের অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী বলেছেন, তার মনে হচ্ছে খুব জলদি নিজের জীবনী লিখেছেন। আরো কিছুদিন অপেক্ষা করা উচিত ছিল।

কিন্তু বইটি প্রকাশ পাওয়ার পর দেখা যাচ্ছে, যতটুকু বলা দরকার, তা থেকে অনেক বেশি বলেছেন এই অভিনেতা। ‘অ্যান অর্ডিনারি লাইফ : এ মেমোর’ নামে এই তারকার জীবনী প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই বিতর্ক শুরু হয়েছে।

কারণ সাবেক প্রেমিকাদের অনুমতি ছাড়া তাদের সম্পর্কে অনেক আপত্তিকর কথা এই বইয়ে তুলে এনেছেন নওয়াজউদ্দিন। তাতে খেপে যান অভিনেতার সাবেক দুই প্রেমিকা সুনিতা রাজওয়ার ও নীহারিকা সিং। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে নীহারিকা ভারতের জাতীয় নারী কমিশনে নওয়াজউদ্দিনের বিরুদ্ধে অভিযোগও করেছেন।

আত্মজীবনীতে দুই প্রেমিকার সঙ্গে তার যৌন সম্পর্কের কথা বিস্তারিতভাবে জানিয়েছেন নওয়াজউদ্দিন। এই ঘটনা ঘিরে বিতর্ক দানা বাঁধে। ক্ষোভ প্রকাশ করেন নিহারিকা। প্রাক্তন মিস ইন্ডিয়া নিহারিকা সিং বলেন, এর মাধ্যমে মহিলাদের অপমান করছেন নওয়াজ। অন্যদিকে, সুনীতা দাবি করেন, নওয়াজ মিথ্যা বলছেন।

সুনীতা আরো বলেন, নওয়াজের মানসিকতার জন্য তিনি তাকে ছেড়ে গিয়েছিলেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে নওয়াজ তার স্মৃতিকথায় যাদের ভাবাবেগ আহত করেছেন, তাদের প্রত্যেকের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। সমগ্র ঘটনার জন্য ক্ষমা চেয়ে বইটি প্রত্যাহারের কথাও জানিয়েছেন তিনি। নওয়াজউদ্দিনের স্মৃতিকথার সহ লেখক ঋতুপর্ণা চট্টোপাধ্যায়। বইটির প্রকাশক সংস্থাও বইটি প্রত্যাহার করার কথা জানিয়েছে।

তোপের মুখে পড়ে গত সোমবার সন্ধ্যায় নওয়াজউদ্দিন তার টুইটার অ্যাকাউন্টে নিজের জীবনী প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, আমার স্মৃতিকথা ঘিরে যে বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়েছে এবং এই বইয়ের বিভিন্ন তথ্য যাদের অনুভূতিতে আঘাত দিয়েছে, আমি তাদের সবার কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। আর এ কারণে আমি আত্মজীবনীটি প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

কিন্তু তার প্রাক্তন প্রেমিকাদের যা ক্ষতি হওয়ার, তা তো হয়েই গেছে। বিশেষ করে নওয়াজউদ্দিনের বইটি প্রকাশ পাওয়ার পর বৈবাহিক জীবনে বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছেন সুনিতা রাজওয়ার, যাকে আত্মজীবনীতে নওয়াজউদ্দিন নিজের প্রথম প্রেমিকা বলে দাবি করেছেন।