জাবিতে বদলি পরীক্ষা দিতে গিয়ে আটক

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষায় অন্যের হয়ে পরীক্ষা দিতে গিয়ে তিনজন আটক হয়েছেন।

সোমবার গাণিতিক ও পদার্থ বিষয়ক অনুষদের (এ ইউনিট) পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ৪০৫ নাম্বার রুম থেকে কামরুজ্জামান রাজ্জাক নামে ওই শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়। পরে তার তথ্যের ভিত্তিতে আরো দুইজনকে আটক করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

আটককৃতরা হলেন- জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতাত্ত্বিক বিজ্ঞান বিভাগের ৪৬ তম আবর্তনের শিক্ষার্থী মোহাইমিনুল ইসলাম সালমান, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) মেকানিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের স্নাতক দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী কামরুজ্জামান রাজ্জাক ও তার বন্ধু আবদুল আল নোমান।

জানা যায়, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সারোয়ার হোসনের ছোট ভাই মেহেদী হাসানের বদলি পরীক্ষা দেওয়ার জন্য তিন লাখ টাকা চুক্তি হয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতাত্ত্বিক বিজ্ঞান বিভাগের ৪৬তম আবর্তনের শিক্ষার্থী মোহাইমিনুল ইসলাম সালমানের সঙ্গে।

তিনি আবার বদলি পরীক্ষার্থী হিসেবে ২ লাখ টাকার চুক্তি করে তার বন্ধু খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) মেকানিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের স্নাতক দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী কামরুজ্জামান রাজ্জাকের সঙ্গে।

পরে চুক্তি অনুযায়ী মেহেদী হাসানের পরীক্ষা দিতে আসলে শিক্ষকদের কাছে ধরা পড়েন রাজ্জাক। পরে তার তথ্যের ভিত্তিতে তার বন্ধু ও সালমানকে আটক করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ২ লাখ টাকার বিনিময়ে রাজ্জাক পরীক্ষা দিতে এসেছে বলে এ প্রতিবেদকের কাছে স্বীকার করেন তিনি।