চিরিরবন্দরে নিখোঁজের তিনদিন পর মরদেহ উদ্ধার

 

 

 

 

প্লাবন গুপ্ত শুভ : নিখোঁজের তিনদিন পর গত বৃহস্পতিবার বিকেলে দিনাজপুরের চিরিরবন্দরের ডাঙ্গীর বাজার সংলগ্ন বাঁশ ঝাড় থেকে জহির উদ্দিন (৭০) নামের এক বৃদ্ধের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। জহির উদ্দিন উপলোর ঈসবপুর ইউনিয়নের বাঙালপাড়া গ্রামের মৃত আহম্মদ আলীর ছেলে ও দুই ছেলে সন্তানের জনক।

 

নিহত জহির উদ্দিনের ছেলে মো. রঞ্জু বলেন, গত সোমবার (২৪জুলাই) সন্ধ্যায় মাগরিবের নামাজের পর তার বৃদ্ধ পিতা জহির উদ্দিন বাড়ির পার্শ্ববর্তী ডাঙ্গীর বাজারে যান। বাজারে যাওয়ার পর ওই রাতে আর বাড়ি ফেরেননি। পরদিন মঙ্গলবার (২৫জুলাই) সকালেও জহির উদ্দিন বাড়ি না ফেরায় বাড়ির লোকজন খোঁজাখুঁজি শুরু করেন।

 

 

 

আশপাশের এলাকাসহ আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে খোঁজাখুঁজি করেও তার কোন সন্ধান না পাওয়ায় স্থানীয় বাঁশঝাড়, পাটক্ষেতসহ বিভিন্ন পুকুর পাড়ে সন্ধান চালিয়ে ব্যর্থ হয়েছেন বাড়ির লোকজন। এক পর্যায়ে গত বৃহস্পতিবার (২৭জুলাই) বিকেলে ছাগল আনতে গিয়ে ডাঙ্গীর বাজার সংলগ্ন বাঁশঝাড়ের মধ্যে অর্ধগলিত একটি মরদেহ দেখতে পান এক নারী। বিষয়টি জানাজানি হলেও বাড়ির লোকজন গিয়ে জহির উদ্দিনকে সনাক্ত করেন।

 

 

 

 

জহির উদ্দিনের স্ত্রী রেজিয়া বেগম বলেন, তার স্বামী জহির উদ্দিন এলাকার একজন শান্ত ও নিরীহ মানুষ ছিলেন। বাড়ি থেকে বাজারে যাওয়ার কথা বলে আর ফিরে আসেননি। বাঁশঝাড়ে তার মরদেহ পাওয়া গেলো।

 

 

 

 

থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হারেসুল ইসলাম বলেন, ওইদিন সন্ধ্যায় জহির উদ্দিনের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।